বড়লেখায় জুমের পানগাছের বাগান কেটে দিল দুর্বৃত্তরা

মৌলভীবাজার

মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার দক্ষিণ শাহবাজপুর ইউনিয়নের বনাখলাপুঞ্জির একটি পান জুমের প্রায় ৪০০ পানগাছ দুর্বৃত্তরা কেটে ফেলেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। পানগাছ কাটায় জুম মালিকের ছয়-সাত লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত জুমের মালিক ফ্রেসমিন ওয়ার সোমবার (১৭ জানুয়ারি) দুপুরে বড়লেখা থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন।

ক্ষতিগ্রস্ত জুম মালিক ও জিডি সূত্রে জানা গেছে, বনাখলা খাসি পুঞ্জির (খাসিয়া পুঞ্জি) বাসিন্দা ফ্রেসমিন ওয়ার গত শুক্রবার বোনের বিয়ে উপলক্ষে জেলার কুলাউড়া উপজেলায় ছিলেন। এই সুযোগে অজ্ঞাতনামা দুর্বৃত্তরা তার পান জুমের পানগাছ কেটে ফেলে। প্রতিবেশীর মাধ্যমে খবর পেয়ে শনিবার বিকেলে তিনি পুঞ্জিতে আসেন। রোববার জুমে গিয়ে দেখতে পান তার একটি জুম থেকে প্রায় ৪০০ পানগাছ কাটা পড়েছে। পাশাপাশি জুম থেকে পানও চুরি করে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। এরপর তিনি শ্রমিকদের দিয়ে কাটা পানগাছগুলো টেনে এক জায়গায় স্তুপ করে রাখেন। পানগাছ কাটায় তার প্রায় ছয়-সাত লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত পান জুমের মালিক ফ্রেসমিন ওয়ার বলেন, ‘ধারণা করছি শুক্রবারের দিকে পানগাছ কাটছে। ধারালো কিছু দিয়ে কেটেছে। তাই ওইদিনেই গাছ মরা শুরু হয়। পুঞ্জির লোকজনের মাধ্যমে শনিবার খবর পাই। এরপর রোববার জুমে গিয়ে পানগাছ কাটার বিষয়টি দেখতে পাই। প্রায় ছয়-সাত লাখ টাকার ক্ষতি হয়ে গেছে আমার। আমরা নিরীহ মানুষ। পান চাষ করেই জীবিকা চালাই। একটা পানগাছের লতা কাটলেই সব শেষ। এই অবস্থায় ৪০০ গাছ কেটেছে।’

ফ্রেসমিন ওয়ার আরও বলেন, ‘যে ক্ষতি হয়েছে মাথা ঠিক থাকে না। এই গাছগুলোর ১৩ থেকে ১৪ বছর হয়েছে। কেটে ফেলায় অনেক ক্ষতি হয়েছে। এরকম গাছ বড় হতে আরও অনেক বছর লাগবে। এই ক্ষতি কাটিয়ে ওঠা সম্ভব নয়।’

এই বিষয়ে শাহবাজপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের সাথে সিলেট লাইনের যোগাযোগ হলে তিনি বলেন দুর্বৃত্তদের সনাক্তের জন্য কাজ চলছে ।

বড়লেখা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার মুঠোফোনে বলেন, ‘কে বা কাহারা গত শুক্রবার জুমের পান গাছ কাটছে। এ ব্যাপারে জুমের মালিক থানায় একটি জিডি করেছেন। পুলিশের তদন্ত চলছে। তদন্ত সাপেক্ষে দায়ীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.