নামাজে অজু ভেঙে গেলে যা করবেন

ইসলাম ও জীবন

নামাজে যদি অজু ভঙ্গের কোনো কারণ পাওয়া যায়; যেমন- বায়ু নির্গত হলো— তাহলে কি নামাজ ভেঙে যাবে?

এই প্রশ্নের উত্তর হলো- কারও নামাজে যদি অজু ভেঙে যাওয়ার মত ব্যাপার ঘটে এবং তিনি যদি নিশ্চিত হন যে— তার অজু ভেঙে গেছে, তাহলে তিনি অজু করার জন্য চলে যেতে পারবেন। এক্ষেত্রে কারও সাথে কথা বলতে পারবেন না অর্থাৎ নামাজ ভঙ্গ হয়— এমন কোনো কাজ করতে পারবেন না।

জামাতে যদি নামাজ আদায় করে থাকেন, তাহলে কারও সাথে কোনো কথা না বলে অজু করে নেবেন এবং নামাজের যে অংশে অজু ভঙ্গ হয়েছিল— সেখান থেকে নামাজ শুরু করতে পারেন। অর্থাৎ ইমামের সাথে দুই রাকাত নামাজ আদায় করার পর কারও অজু ভেঙে গেছে, তাহলে ইচ্ছে করলে তিনি এরপর বাকি দুই রাকাত নামাজ সম্পন্ন করতে পারবেন। অজু ভাঙার কারণে তার নামাজ ভাঙেনি, তাই নামাজ ধারাবাহিকভাবে শেষ করতে পারবেন অথবা ইচ্ছে করলে তিনি পুনরায় প্রথম থেকে নামাজ শুরু করে শেষ করতে পারবেন।

নামাজে অজু ভেঙে গেলে দুই পদ্ধতি

এক. এসে যদি পথিমধ্যে কারও সাথে কোনো কথা না বলে থাকেন কিংবা নামাজ ভঙ্গ হয়— এমন কোনো কাজ না করে থাকেন, তাহলে যেখান থেকে তিনি নামাজ রেখে গেছেন; সেখান থেকে বাকি অংশটুকু পড়ে নিতে পারবেন।

দুই. অথবা অজু করে এসে ইচ্ছে করলে— শুরু থেকে নামাজ আদায় করতে পারবেন বলেই নামাজ ভেঙে গেছে এমনটি মনে করা ঠিক নয়। তবে পথিমধ্যে কারও সাথে কথা বললে কিংবা অন্য কোনো কাজে বিলম্ব করলে অবশ্যই নামাজ শুরু থেকে আদায় করতে হবে।

(সূত্র : সুনানে দারাকুতনি, হাদিস : ১৭০৮)

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *